একতরফা ভালোবাসা কেমন আছো? নিশ্চয় ভালো! তুমি ভাল থাকো সেটাই আমি চাই। হয়তো বিস্মিত হয়েছো তোমাকে প্রিয় বলায়। আসলে অপরিচিতারা সহজেই কি কারোর প্রিয় হয়? তারা তো হঠাৎ আসে, তাই অনেকেই প্রিয় হয়না, কিন্তু তুমি অন্যরকম! অল্প কিছু সময়ের দেখায় তুমি আমার প্রিয় হয়ে গেছো!

অপরিচিতা, কোথায় আছো তুমি বলতো? কখনো কি দেখা দিবে! নাকি সারাজীবন অপরিচিতাই রয়ে যাবে। কেমন অবাক ব্যাপার তাইনা বলো!! এই যে তোমাকে চিনিনা জানিনা তবুও তোমাকে লিখছি।

কেন লিখছি আদৌ জীবনে কোনদিন তোমার কাছে পৌছবে কি এই লিখা??

ক্ষণিকের দেখাতে আমি মুগ্ধ হয়েছিলাম, তোমার ঐ কাজল কালো চোখে কি মায়া, আড়চোখে বারবার কি দেখছিলে? এই অসুন্দর ছেলেটা তোমার দিকে এত তাকিয়ে কি দেখছে?

ছেলেটার কতটা নিলর্জ্জ তাই ভাবছিলে মনে মনে তাই না? একতরফা ভালোবাসা

তোমার মৃদু কাপা ঠোট, কি কথা বলছিল? বারবার কথা বলতে গিয়ে থমকে কেন যাচ্ছিলে? তোমার ঐ গোলাপ মাখা ঠোটে স্রষ্টা কি যাদু দিয়েছেন, খুব জানতে মন চায়। ঠোট তো নয়, যেন একগুচ্ছ গোলাপের পাপড়ি।

তোমার দিকে যখন অপলক দৃষ্টিতে আমি চেয়ে ছিলাম, তখন একটা সময় তোমার চেহারাটা লাল হয়েছিল, তখন তোমাকে খুব সুন্দর লাগছিল।

একতরফা ভালোবাসার গল্প

গাড়ির আচমকা ধাক্কায় তোমার চমকে ওঠাটাও, আজও আমার কাছে খুব রহস্যময় মনে হয়!

আচ্ছা, তুমি জানালার পাশের সিটে কেন বসেছিলে? ওখানে বসাটা তোমার মোটেও উচিত হয়নি, তোমার খোলা চুল যখন বারবার তোমার মুখের উপর উড়তেছিলো, তখন কি তোমার খুব বেশি বিরক্ত লাগতেছিলো?

অষ্টম আশ্চর্য তুল্য হাত দিয়ে কপালের চুল সরানোর সেই দৃশ্য, আজও আমায় ঘুমাতে দেয় না।

তখন কি একবার ও দেখেছিলে, এই ছেলেটা মুগ্ধ হয়ে অপলক নয়নে শুধু তোমাকে দেখতেছিলো?

তোমাকে ঐ নীল ড্রেসটাতে অনেক মানিয়েছিলো, তোমার মায়াবী হাসি, কাজল কালো হাস্যজ্বল চোখ, চঞ্চলতায় ভরপুর ঐ তুমিটার প্রেমে পড়েছিলাম, আমি ক্ষণিকের মাঝে অসংখ্যবার। ব্যাপারটা একটু অস্বাভাবিক হলেও আমার কাছে ছিল খুবই স্বাভাবিক! একতরফা ভালোবাসার গল্প

তুমি গাড়ি থেকে নামার পরও, অদৃশ্য না হওয়া পর্যন্ত আমি তোমার পানে অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে ছিলাম, ঠিক ক্যাম্পাসের গেট দিয়ে প্রবেশের আগে, তুমি কি ভেবে পিছনে তাকিয়েছিলে? ছেলেটা এখনও তোমাকে দেখছে কিনা তাই দেখার জন্য? তাই না???

তুমি জানো, তুমি বাস থেকে নেমে যাওয়ার কিছুক্ষন পরেই, কি যেন ভেবে আমিও বাস থেকে নেমে গিয়েছিলাম, দুরুদুরু বুকে তোমার পিছু নিয়েছিলাম।

সেদিন, আমার মনে শুধু একটাই কথা মনে হয়েছিল, এই অপরিচিতাকে তো হারাতে দেওয়া যাবে না, সবাইকে দেখে তো হৃদয়ের মাঝে এই অনুভূতি হয়না, তাই না, বলো??

আমার পরিচিত বন্ধুদের কাছ থেকে তোমার খোজ নিয়েছিলাম, তোমার নামটা শুনে মনের মাঝে সে কি অনুভূতি! সে কি আনন্দ! তোমাকে ঠিক বলে বুঝাতে পারবো না।

ক্ষণিকের ভালোলাগাও, মানুষকে চলতে ফিরতে অনেক কিছু শিখিয়ে দিয়ে যায়, নতুন কোন কল্পনার রাজ্যে তীব্রভাবে হারিয়ে দিয়ে যায়! সেদিনই প্রথম আমি অনূভব করেছিলাম…!

একতরফা ভালোবাসার গল্প

4 thoughts on “প্রিয় অপরিচিতা, একতরফা ভালোবাসা গল্প”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights